আমাজন জঙ্গল এর ভয়ানক অজানা তথ্য
আমাজন বনের ছবি। আমাজন নদী।

আমাজন জঙ্গল এর ভয়ানক অজানা তথ্য

আমাজন, নামটি শুনলেই আমাদের মনে এক কৌতূহলের সৃষ্টি হয়। আর এমনটি হবেই না কেন? এই আমাজন জঙ্গল কে ঘিরেই যে গবেষকরা দিনের পর দিন গবেষণা করেই চলেছে। শুরু তাই নই, এ আমাজন জঙ্গল কে ঘিরেই, হলিউডে তৈরি হয়েছে, অনেক বড় বড় মুভি।

কিন্তু কি রয়েছে, এই আমাজনে? এমনও কি কোন রহস্য রয়েছে, যা এখনও কোন বিজ্ঞানী বেদ করতে পারিনি।

আজকে আমরা এমনই কিছু রহস্যময় আমাজন জঙ্গলের অজানা তথ্য নিয়ে আলোচনা করব।

পরিচ্ছেদসমূহ:

  1. কোন দেশে অবস্থিত আমাজন বন
  2. আমাজন জঙ্গলের সৌন্দর্য
  3. আমাজন বনের জীব-বৈচিত্র্যে
  4. আমাজন বনের অধিবাসী
  5. আমাজন নদী

কোন দেশে অবস্থিত আমাজন জঙ্গল

বেশ কয়েকটি দেশের সাথেই জরিয়ে আছে এই মহাবন আমাজন। আমাজন বনের আয়তন প্রায় ৫৫,০০,০০০ বর্গ কিলোমিটার।

রহস্যময় আমাজন জঙ্গল দক্ষিণ আমেরিকান নয় টি দেশ ঝুরে অবস্থিত। এর বেশির ভাগ অংশই রয়েছে, ব্রাজিল, কলম্বিয়া এবং পেরুতে।

image of amazon rain forest. আমাজন বনের ছবি।

আজকের আলোচনার বিষয়: আমাজন জঙ্গল

ভয়ঙ্কর যতই হোক না কেন, কিন্তু এর সৌন্দর্যে মুগ্ধ হয়নি, এমন লোক খুব কম ই খুজে পাওয়া যাবে। সৌন্দর্য ও আতংকের নামই হচ্ছে আমাজন।

আমাজন জঙ্গলের সৌন্দর্য

এরকম বন পৃথিবীর দ্বিতীয় টি আর কোথাও নেই। যেখানে ভয়ঙ্কর শব্দটিও অতি সাধারণ মনে হয়। রহস্যময় এ বনের সৃষ্টি হয়, আজ থেকে প্রায় ৫৫ মিলিয়ন বছর পূর্বে।

বিশ্বব্যাপী যখন গ্রীষ্ম মন্ডলীয় তাপমাত্রা হ্রাস পায়। এবং আটলান্টিক মহা সাগর এর বিস্তৃতির ফলে আমাজন বেসিনে উষ্ণ ও আদ্র জলবায়ু আবির্ভাব ঘটে। যার ফলে আমাজন বনের সৃষ্টি হয়।

আজকের আলোচনার বিষয়: আমাজন জঙ্গল

আমাজন জঙ্গল জীব-বৈচিত্র্যে

নানা রকম প্রজাতির বাসস্থান হিসাবে, সমৃদ্ধ এই জঙ্গলে প্রায় ৩৯০ বিলিয়ন বৃক্ষ রয়েছে। এগুলো প্রায় ১৬,০০০ প্রজাতিতে ভিবক্ত ।

এছাড়াও এখানে রয়েছে মাংস খেকো গাছ। যা ভেনাস ফ্রাইট্রাপ নামে পরিচিত। এর রয়েছে ছয় ইন্চি লম্বা পাতা, যা দুই অংশে ভিবক্ত। দেখতে অনেক টা চোয়ালের মতো। এই চোয়ালের সাহায্যেই , এই গাছ বিভিন্ন পোকা – মাকড় খেয়ে থাকে।

এছাড়াও এখানে রয়েছে বিভিন্ন প্রকার খতিকর প্রাণী। তাদের মধ্য উল্লেখ যোগ্য হল, রক্ত চোষা বাদুড় , জাগুয়া এবং এনাকোন্ডা। পৃথিবীর সবচেয়ে বড় আকারের এই সাপ, আমাজনের আতংক বলেই জানেন সাধারণ মানুষ।

রহস্যময় আামাজন এর গ্রীন অ্যানাকোন্ডার ওজন প্রায় ১৫০ -২২৭ কেজি অব্দি হয়ে থাকে।

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় আকারের এই সাপ

আজকের আলোচনার বিষয়: আমাজন জঙ্গল

এখানে প্রায় ৪০০ এর বেশি অধীবাসির গোত্র রয়েছে, এদের সম্পর্কে খুব বেশি জানা যায়নি। কারন বাইরের পৃথিবীর সাথে, এদের তেমন কোন যোগাযোগ নেই বললেই চলে।

আমাজন জঙ্গলের অধিবাসী

এমনকি কিছু গোত্রের নিজস্ব ভাষাও রয়েছে । কেউ কেউ বলেন, আমাজনের মাঝে নাকি, মানুষ খেকো, মানুষেরও বসবাস রয়েছে।

এদের পক্ষে বিপক্ষে নানা যুক্তি থাকলেও, এটা সত্যি যে, মানুষের অনেক অজানা অনেক নৃগোষ্ঠীর বসবাস রয়েছে, এই বনে।

এছাড়াও আপনি যদি হলিউডের মুভি দেখতে ভালবাসেন, তাহলে হলিউডের মুভি নিয়ে আমাদের এই রিভিউ টি দেখতে পারেন।

আমাজন বনের অধিবাসী

আজকের আলোচনার বিষয়: আমাজন জঙ্গল

আমাজন নদী

আমাজন জঙ্গল জীবনী শক্তি হল, এই বনের আমাজনের নদী। দক্ষিণ আমেরিকার আন্দিজ পর্বতের, নেবাদা মিসমি নামক চূড়া থেকে, এই নদীর উৎপত্তি হয়েছে।

এর দৈর্ঘ্য প্রায় ৬,৪০০ কিলোমিটার। বিশ্বের যে কোন নদীর তুলনায়, বেশি পানি এ নদী দিয়ে বয়ে যায়।

এই নদী দিয়ে প্রতি সেকেন্ডে ৪.২ মিলিয়ন ঘন ফুট পানি, সাগরে গিয়ে মিশে।যার ফলে সমুদ্রের পানি ১০০ মাইল পর্যন্ত কম লবণাক্ত থাকে।

এ নদীতে রয়েছে বিচিত্র প্রাণীর ছড়াছড়ি। এ নদীর বিশিষ্ট বাসীন্দাদের মধ্য রয়েছে, ইলেক্ট্রনিক ইল এবং পিরানহার মত ভয়াবহ মাছ

আমাজন নদী।
আমাজন বনের ছবি। আমাজন নদী।

আপনি যদি পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর মাছ সম্পর্কে জানতে চান, তাহলে আমাদের এই পোস্ট টি দেখুন।

ভয়ংকর মাছ
ভয়ংকর মাছ

This Post Has 3 Comments

Leave a Reply